মায়ে-বলে

মা’য়ে বলে

ভোর হলে রবি জ্বলে আলো দেয় ভরে,
রাত শেষে দূরে ভেসে সারাদিন ধরে।
ফুল ফোটে অলি জোটে মধু নিয়ে যায়,
ঘুম ছুটে জেগে উঠে খোকা খুকি চায়।

মা’য়ে এসে বলে হেসে মুখ ধুয়ে নাও,
দাঁত মেজে ভালো সেজে তবে কিছু খাও।
খেয়ে নিয়ে ঘরে গিয়ে লেখাপড়া করো,
পড়া শিখে ভালো লিখে হতে হবে বড়ো।

ফাঁকি দিলে দুখ মিলে মনে রেখো যথা,
কথা মেনে সব জেনে করে যাও তথা।
লেখাপড়া হোক কড়া তবু করে চলো,
ভয় ভুলে মন খুলে আমি পারি বলো।

মনে রেখো আগে দেখো খুঁজে পাবে সুখ,
যারা পড়ে তারা গড়ে সরে থাকে দুখ।
ছোট থেকে গেলে বেঁকে দুখ মেলে পরে,
কাজ হীনা সুখ বিনা বসে থাকে ঘরে।

তাই রোজ নহে বোঝ ভেবো না তো পড়া,
পড়ে যাও ধ্যান দাও চলে যাবে খরা।
ছেলেমেয়ে ওঠে গেয়ে বুঝে গেছি মাতা,
মানি তাই মোরা চাই হয়ে থেকো ছাতা।

0 0 votes
Writing Rating
Share This
Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on email
Share on linkedin
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
নারী পুরুষ মিলে সংসারভবের বুকে আছে,নারীর বিনা হয় না কিছুইবলুক কেহ পাছে। নারী থেকেই সৃষ্টি আমরাযাঁরে মা-মা ডাকি,সারাজীবন আগলে রাখেদেবে নাতো ফাঁকি। যদি ভাবছো …
যাবো যাবো করেও তবুযাচ্ছে নাতো বর্ষা,আকাশের মুখ কখনো ভারকখনো যে ফর্সা। রোদ্র মেঘের খেলা দেখিসারাআকাশ জুড়ে,দুর্গাপুজো আসছে কাছেনেইতো বেশি দূরে। সবার মনেই একটা চিন্তাএবার …
বর্ষার শেষে শরৎ এলোএকটা বছর পরে,বৃক্ষ শাখে ফুলের মেলাজুঁই চামেলি ধরে। নীলাকাশে মেঘের ভেলাকতো ছবি আঁকে,মাঝে মধ্যেই ভেসে গিয়েরবির রশ্মি ঢাকে। কাশ ফুলেরা মাথা …
Read More
নারী পুরুষ মিলে সংসারভবের বুকে আছে,নারীর বিনা হয় না কিছুইবলুক কেহ পাছে। নারী থেকেই সৃষ্টি আমরাযাঁরে মা-মা ডাকি,সারাজীবন আগলে রাখেদেবে নাতো ফাঁকি। যদি ভাবছো …
যাবো যাবো করেও তবুযাচ্ছে নাতো বর্ষা,আকাশের মুখ কখনো ভারকখনো যে ফর্সা। রোদ্র মেঘের খেলা দেখিসারাআকাশ জুড়ে,দুর্গাপুজো আসছে কাছেনেইতো বেশি দূরে। সবার মনেই একটা চিন্তাএবার …
বর্ষার শেষে শরৎ এলোএকটা বছর পরে,বৃক্ষ শাখে ফুলের মেলাজুঁই চামেলি ধরে। নীলাকাশে মেঘের ভেলাকতো ছবি আঁকে,মাঝে মধ্যেই ভেসে গিয়েরবির রশ্মি ঢাকে। কাশ ফুলেরা মাথা …